২০২১: আন্তর্জাতিক অঙ্গনে আলোচিত ১০ ঘটনা

আন্তর্জাতিক

মহামারি থেকে শুরু করে স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক রাজনীতির যেসব ঘটনা বিশ্বজুড়ে আলোচনার জন্ম দিয়েছে, মানুষকে প্রভাবিত করেছে, সেসবের মধ্যে ১০টি ঘটনা নিয়ে এই আয়োজন :

বৈশ্বিক মহামারি
এক দিন, দুই দিন বা এক মাস, দুই মাস নয়, বছরজুড়ে যে আতঙ্ক বিশ্ববাসীকে আগাগোড়া পর্যুদস্ত করে রেখেছে, সেটি হলো করোনাভাইরাস মহামারি। চীনের উহান থেকে দ্রুত ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস এ বছরের গোড়ার দিকে বৈশ্বিক মহামারির রূপ নিলে থমকে যায় পুরো বিশ্ব। একের পর এক রূপ পাল্টে আরো সংক্রামক হয়ে ওঠা এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এরই মধ্যে প্রাণ গেছে ৫৪ লাখ ২৫ হাজার ৬৭৭ জন মানুষের। আর আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ২৮ কোটি ১৯ লাখ ৮৯ হাজার। এ ভাইরাস কেবল মানুষের প্রাণ নিয়ে ক্ষান্ত থাকেনি, বৈশ্বিক রাজনীতি আর অর্থনীতিকেও প্রভাবিত করেছে।

ক্যাপিটল হিলে দাঙ্গা
যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে বিরতিহীনভাবে খবরের জন্ম দিয়ে গেছেন যে ডোনাল্ড ট্রাম্প, ক্ষমতা ছাড়ার আগমুহূর্তে সেই ট্রাম্পই মার্কিন ইতিহাসে কলঙ্কের জন্ম দিয়েছেন। প্রতিদ্বন্দ্বী জো বাইডেনের কাছে পরাজয় স্বীকার না করা ট্রাম্প ক্রমাগত সমর্থকদের উসকানি দিয়ে গেছেন। তাঁর সমর্থকদের উত্তেজনা শেষ পর্যন্ত দাঙ্গায় রূপ নেয়। গত ৬ জানুয়ারি রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসিতে ক্যাপিটল হিলে হামলা ও ভাঙচুর চালায় ট্রাম্পের সমর্থকরা। মার্কিন পার্লামেন্ট ভবনে সেদিনের হামলার ঘটনায় এক পুলিশসহ ছয়জনের প্রাণহানি ঘটে।

অভ্যুত্থানে ফের গৃহবন্দি সু চি
মিয়ানমারে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার আন্দোলন করতে গিয়ে এক যুগের বেশি সময় যাঁকে গৃহবন্দি থাকতে হয়েছে, সেই অং সান সু চিকে ফের একই পরিণতি ভোগ করতে হচ্ছে। সু চির দল ন্যাশনাল লীগ ফর ডেমোক্রেসি (এনএলডি) দ্বিতীয় দফা নির্বাচনে কারচুপি করেছে, এমন অভিযোগ তুলে দেশটির সেনাবাহিনী গত ১ ফেব্রুয়ারি অভ্যুত্থানের মাধ্যমে গণতান্ত্রিক সরকারকে হটিয়ে ক্ষমতা দখল করে। বন্দি করে সু চি ও তাঁর দলের শীর্ষস্থানীয় নেতাদের। দুর্নীতি, দেশদ্রোহসহ বিভিন্ন মামলায় তাঁদের বিচার করা হচ্ছে। সব মামলায় সু চিকে সাজা দেওয়া হলে তাঁর ১০০ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে।

ইসরায়েল-হামাস লড়াই
ইসরায়েল-ফিলিস্তিন দ্বন্দ্ব অর্ধশতকের পুরনো। সেই দ্বন্দ্ব নতুন করে উসকে ওঠে এ বছর মে মাসে। ইসরায়েলের সুপ্রিম কোর্ট পূর্ব জেরুজালেমের শেখ জারাহ এলাকা থেকে ছয় ফিলিস্তিনি পরিবারকে উচ্ছেদের পক্ষে রায় দিলে গত ৬ মে থেকে বিক্ষোভ শুরু হয়। সেই বিক্ষোভ ১০ মে ইসরায়েল-হামাস যুদ্ধে রূপ নেয়। ১১ দিনের যুদ্ধে ফিলিস্তিনে শতাধিক নারী-শিশুসহ কমপক্ষে আড়াই শ জনের মৃত্যু হয়। বিপরীতে ইসরায়েল হারিয়েছে ১২ জন। আন্তর্জাতিক অঙ্গনের মধ্যস্থতায় অস্ত্রবিরতির মধ্য দিয়ে এ রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ইতি টানা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রে বর্ণবাদবিরোধী অন্দোলন
শ্বেতাঙ্গ সংখ্যাগরিষ্ঠের দেশে অশ্বেতাঙ্গদের নিপীড়িত হওয়ার ঘটনা নতুন কিছু নয়। এর মধ্যে যে ঘটনা যুক্তরাষ্ট্রের বর্ণবাদবিরোধী ও পুলিশি নিপীড়নবিরোধী আন্দোলনে নতুন গতি এনে দিয়েছিল, সেটি হলো কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েড হত্যাকাণ্ড। ২০ ডলারের বিল দিতে গিয়ে জাল নোট ব্যবহারের অভিযোগে ফ্লয়েডকে গ্রেপ্তারের পর শ্বাসরোধে মেরে ফেলেন এক পুলিশ কর্মকর্তা। গত ২৫ মের সেই হত্যাকাণ্ডের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে তীব্র থেকে তীব্রতর হয়ে ওঠে বর্ণবাদবিরোধী আন্দোলন। পরে তা ইউরোপসহ বিশ্বের বিভিন্ন অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়ে।

পেগাসাস কাণ্ড
বিদায়ি বছরের মাঝামাঝি সময়ে বিশ্বজুড়ে আলোচনায় আসে এনএসও শীর্ষক ইসরায়েলি প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের তৈরি পেগাসাস সফটওয়্যার। পূর্ব থেকে পশ্চিমে, উত্তর থেকে দক্ষিণে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সরকার এই সফটওয়্যার ব্যবহার করে বিরোধী রাজনীতিক, মানবাধিকারকর্মী, আইনজীবী ও সাংবাদিকদের ফোনে আড়ি পাতছে, এমন অভিযোগ ওঠে। গত ১৮ জুলাই প্রকাশিত ওই তদন্ত প্রতিবদন বিশ্বজুড়ে হৈচৈ ফেলে দেয়। ‘দ্য পেগাসাস প্রজেক্ট’ নামের ছত্রচ্ছায়ায় প্রকাশিত প্রতিবেদনে আরো অভিযোগ করা হয়, এক দেশের সরকার অন্য দেশের সরকারপ্রধানের ফোনে আড়ি পেতেছে, এমন ঘটনা ঘটেছে।

তালেবানের প্রত্যাবর্তন
২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্রে সিরিজ হামলার পর মার্কিন সেনাবাহিনী আফগানিস্তানে অভিযান চালিয়ে তৎকালীন তালেবান সরকারকে উত্খাত করে এবং নিজেদের পছন্দের সরকারকে ক্ষমতায় বসায়। সন্ত্রাসবিরোধী অভিযানের নামে ২০ বছর আফগানিস্তানে অবস্থান করেন মার্কিন নেতৃত্বাধীন ন্যাটোর সেনা সদস্যরা। দীর্ঘায়িত এ যুদ্ধের ইতি টানার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসার সঙ্গে সঙ্গে তৎপর হয়ে ওঠে তালেবান। গত মে মাসে আফগানিস্তান থেকে বিদেশি সেনা সরতে শুরু করার তিন মাসের মধ্যে দেশের বেশির ভাগ এলাকার নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয় ওই গোষ্ঠী। গত ১৫ আগস্ট কাবুলে প্রবেশ করে কার্যত দেশের ক্ষমতা নিয়ে নেয় দুই দশক থমকে থাকা তালেবান।

মহাশূন্য পর্যটন
গত ১৬-১৮ সেপেটম্বর চার পর্যটক মহাশূন্যে পর্যটনের সূচনা করেন। মার্কিন ধনকুবের ইলন মাস্কের প্রতিষ্ঠান স্পেসএক্স আয়োজিত তিন দিনের এ সফরের মধ্য দিয়ে মহাশূন্যে বাণিজ্যিকভাবে পৃথিবীবাসীর পর্যটন শুরু হয়।

জার্মানির প্রথম নারী চ্যান্সেলের শাসনামলের ইতি
টানা ১৬ বছর দেশ শাসন করে গত ২৬ সেপ্টেম্বর বিদায় নেন অ্যাঙ্গেলা মার্কেল। জার্মানির প্রথম নারী চ্যান্সেলর ছিলেন তিনি। বিজ্ঞানে পড়াশোনা করতে করতে রাজনীতির ময়দানে তাঁর উত্তরণ। এরপর তাঁকে আর পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি। ২০০২ থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত ছিলেন বিরোধীদলীয় নেত্রী। সে বছরই জার্মানরা তাঁকে ইতিহাসের খাতায় অন্তর্ভুক্ত করে নেয়। তিনি হন দেশটির প্রথম নারী চ্যান্সেলর।

চীন-তাইওয়ান উত্তেজনা
তাইওয়ানকে সব সময় নিজেদের অংশ হিসেবে দাবি করে আসছে চীন। স্বায়ত্তশাসিত ওই ভূখণ্ডের সঙ্গে চীনের দ্বন্দ্ব আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও সম্প্রসারিত। গত অক্টোবরের শুরুতে অনবরত তাইওয়ানের আকাশের প্রতিরক্ষাসীমায় চীনা বিমানের অনুপ্রবেশ সেই দ্বন্দ্বকে আরেক কাঠি এগিয়ে দেয়। তাইওয়ানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী গত ৬ অক্টোবর বলেন, তাঁদের দ্বন্দ্ব গত ৪০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে খারাপ অবস্থায় পৌঁছেছে। এ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গেও বিতণ্ডায় জড়ায় চীন। যুক্তরাষ্ট্র জানায়, চীন হামলা চালালে যুক্তরাষ্ট্র অবশ্যই তাইওয়ানকে রক্ষায় এগিয়ে আসবে। এরপর জাপানও জানায়, চীন তাইওয়ানে হামলা করলে যুক্তরাষ্ট্র ও জাপান চুপচাপ চেয়ে দেখবে না। সম্প্রতি জাপানের বিভিন্ন সরকারি সূত্রের বরাত দিয়ে রয়টার্স জানায়, তাইওয়ান নিয়ে জরুরি পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে, এমন আশঙ্কা মাথায় রেখে যুক্তরাষ্ট্র-জাপান যৌথ প্রস্তুতি গ্রহণের পরিকল্পনা করছে।

সূত্র : এএফপি, রয়টার্স, ওয়ার্ল্ডোমিটার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *