যুক্তরাষ্ট্রে আফগানিস্তান নিয়ে যা বললেন এরদোগান

আন্তর্জাতিক যুক্তরাষ্ট্র

নিউইয়র্কে জাতিসংঘের সদর দপ্তরে ৭৬ তম সাধারণ অধিবেশন চলছে। এই অধিবেশন সামনে রেখে আফগানিস্তান নিয়ে কথা বলেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান।

এরদোগান বলেন, ২০ বছর আফগানিস্তানে থাকার পর যুক্তরাষ্ট্রের উচিত আফগান শরণার্থীদের আরও সাহায্য করা। সিবিএস নিউজকে এক সাক্ষাৎকারে এরদোগান এমন মন্তব্য করেন।

বিশ্বের মধ্যে সব থেকে বেশি শরণার্থী রয়েছে তুরস্কে। ইউরেশিয়ার এই দেশটি প্রায় ৪০ লাখ শরণার্থীকে আশ্রয় দিয়েছে, যার অধিকাংশ সিরিয়ার নাগরিক।

২০০১ সালে যুক্তরাষ্ট্র আফগানিস্তানে হানা দেওয়ার পর লাখ লাখ আফগান নাগরিক শরণার্থী হয়েছে। ১৫ আগস্ট তালেবান কাবুল দখলের পর যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের দেশগুলো ১ লাখের বেশি শরণার্থী আশ্রয় দিয়েছে। আফগানিস্তানের অনেক শরণার্থী ইরান হয়ে তুরস্কে প্রবেশ করেছে। তুরস্ক বলেছে, তারা আর শরণার্থীর বোঝা বহন করতে পারবেন না।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোগান বলেন, এই মুহূর্তে যুক্তরাষ্ট্র আফগানিস্তান নিয়ে প্রতিশ্রুতি পালন করতে ব্যর্থ হয়েছে। আফগানিস্তানের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের আরও ভূমিকা রাখা উচিত, আরও বিনিয়োগ করা উচিত। তুরস্কে ৩ লাখের বেশি আফগান শরণার্থী রয়েছে। আমাদের পক্ষে আফগানিস্তানের আরও শরণার্থীদের আশ্রয় দেওয়া সম্ভব না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *