ম্যারাডোনার ব্যক্তিগত চিকিৎসক ও ছয়জন নার্সকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে

খেলাধুলা

ডিয়েগো ম্যারাডোনার মৃত্যু এখনো আলোচনার জন্ম দিচ্ছে। ম্যারাডোনার চিকিৎসা ঘিরে অবহেলার অভিযোগ ছিল। এই অভিযোগে ম্যারাডোনার ব্যক্তিগত চিকিৎসক ও ছয়জন নার্সকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। সোমবার আর্জেন্টিনার প্রসিকিউটররা এই জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করবেন।

ম্যারাডোনার মৃত্যুতে একটি বিশেষজ্ঞ দলের মাধ্যমে এই সাত জনের বিরুদ্ধে তদন্ত করা হযেছিল। তদন্তে দেখা গেছে, ম্যারাডোনার চিকিৎসায় অবহেলা হয়েছে। মৃত্যুর আগে দীর্ঘ সময় ধরে ম্যারাডোনার ভয়ংকর যন্ত্রণার মধ্য দিয়ে যাওয়ার স্পষ্ট নিদর্শন পাওয়া গেছে। খবর এনডিটিভির।

আর্জেন্টিনার ফুটবলের আইকন ম্যারাডোনা মস্তিকে রক্ত জমাট বাঁধার কারণে অস্ত্রোপচারের কয়েক সপ্তাহ পর ৬০ বছর বয়সে হৃদরোগে মারা যান।

ম্যারাডোনার মৃত্যুর পর তার দুই সন্তান ব্যক্তিগত চিকিৎসক লিওপোলদো লুকের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন। তারা ম্যারাডোনার অপারেশনের পর অবনতিশীল অবস্থাকে দায়ী করেন। যার ভিত্তিতে তদন্ত কার্যক্রম শুরু হয়।

আর্জেন্টিনার পাবলিক প্রসিকিউটরের দ্বারা পরিচালিত ২০ সদস্যের বিশেষজ্ঞদের তদন্তে উঠে আসে, ম্যারাডোনার চিকিৎসায় ‘অবহেলা ও ঘাটতি’ ছিল। চিকিৎসকরা তার বেঁচে থাকাকে ভাগ্যের ওপর ছেড়ে দিয়েছিলেন।

বিশেষজ্ঞ দল মনে করে- উপযুক্ত চিকিৎসা ব্যবস্থা ও পর্যাপ্ত চিকিৎসা পেলে ম্যারাডোনার বেঁচে থাকার সম্ভাবনা ছিল।

তদন্তাধীন অন্যরা হলেন- ম্যারাডোনার মনোবিজ্ঞানী আগুস্টিনা কোসাচভ (৩৫), মনোবিজ্ঞানী কার্লোস ডিয়াজ (২৯), নার্স রিকার্ডো আলামিরন (৩৭), ডাহিয়ানা মাদ্রিদ (৩৬), নার্সিং কো-অর্ডিনেটর মেরিয়ানো পেরোনি (৪০) এবং মেডিকেল কো-অর্ডিনেটর ন্যানসি ফোরলিনি (৫২)।

সোমবার থেকে দুই সপ্তাহের মধ্যে তাদের বিরুদ্ধে করা অভিযোগের জবাব দিতে হবে। প্রসিকিউটরের সামনে একজন একজন করে হাজির হয়ে জবাব দিতে হবে।

এছাড়াও অভিযুক্ত সাত জনকে দেশ ত্যাগে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। দোষী সাব্যস্ত হলে ৮ থেকে ২৫ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে তাদের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *