ভারতে ৩১ জুলাই পর্যন্ত আন্তর্জাতিক যাত্রীবাহী বিমান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা

ভারত

ভারতে প্রাণঘাতী করোনার সংক্রমণের সম্ভাব্য তৃতীয় ঢেউয়ের হুমকি এবং ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট বৃদ্ধি পাওয়ার মধ্যে আন্তর্জাতিক যাত্রীবাহী বিমানের উপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা বাড়িয়ে ৩১ জুলাই পর্যন্ত করা হয়েছে। ডিরেক্টর জেনারেলের অফ সিভিল এভিয়েশন (ডিজিসিএ)আগামী ৩১ জুলাই পর্যন্ত আন্তর্জাতিক বিমান চলাচলের ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে।

এর আগে করোনাভাইরাস সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ের কারণে ‘ডিজিসিএ’ আন্তর্জাতিক ফ্লাইটে আরোপিত নিষেধাজ্ঞা ৩০ জুন পর্যন্ত বাড়িয়েছিল। তবে উপযুক্ত কর্তৃপক্ষ কেবলমাত্র নির্বাচিত রুটে আন্তর্জাতিক নির্ধারিত ফ্লাইট পরিচালনা করতে অনুমতি দিতে পারে।

বুধবার (৩০ জুন) ‘ডিজিসিএ’র জারি করা বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ‘আন্তর্জাতিক বিমানের নিষেধাজ্ঞার সিদ্ধান্তের কোনও প্রভাব কার্গো বিমানের উপরে পড়বে না। একইসঙ্গে এই নিষেধাজ্ঞায় সেসব ফ্লাইটকেও ছাড় দেওয়া হয়েছে, যা ‘ডিজিসিএ’ কর্তৃক বিশেষভাবে অনুমোদিত হয়েছে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, সংযুক্ত আরব আমিরাত, কেনিয়া, ভুটান, ফ্রান্সসহ ২৭ টি দেশের সঙ্গে এয়ার বাবেল চুক্তি করেছে ভারত। ওই চুক্তি অনুসারে বিশেষ আন্তর্জাতিক বিমানগুলো তাদের অঞ্চলের মধ্যে বিমান সংস্থা দ্বারা পরিচালিত হতে পারে।

করোনা মহামারির প্রকোপের মধ্যে ২০২০ সালের ২৩ মার্চ ভারতে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট স্থগিত করা হয়েছিল। তবে, ২০২০ সালের মে থেকে বন্দে ভারত অভিযান এবং ২০২০ সালের জুলাই থেকে কিছু নির্বাচিত দেশের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় এয়ার বাবেল ব্যবস্থাপনার আওতায় আন্তর্জাতিক বিমান চালানো হচ্ছে। পার্সটুডে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *