খালেদা জিয়া করোনায় আক্রান্ত

বাংলাদেশ রাজনীতি

বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান বিরোধী দল বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার কোভিড-১৯ আক্রান্ত। বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর গণমাধ্যমকে এ খবর নিশ্চিত করেছেন।

বিকালে একটি সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। তার টেস্ট রিপোর্ট পজিটিভ, অর্থাৎ তিনি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এখন তিনি তার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধানে এর মধ্যেই চিকিৎসা শুরু হয়েছে। তার কোনো টেমপারেচার নেই, তিনি স্টেবল আছেন, ভালো আছেন, অন্য কোনো উপসর্গ তার নেই। ‘

তিনি জানান, শনিবার খালেদা জিয়ার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল, রবিবার তার ফলাফলে পজিটিভ হওয়ার তথ্য জানা গেছে।

‘চিকিৎসকদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পরবর্তী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে। যদি প্রয়োজন হয়, তাহলে ফারদার ট্রিটমেন্টের ব্যবস্থা করা হবে। আমরা দেশবাসীকে আশ্বস্ত করতে চাই তিনি তার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের তত্বাবধানে আছেন, তিনি ভালো আছেন।’

তিনি দেশবাসীর প্রতি আহবান জানান যেন, সবাই তার মুক্তির জন্য দোয়া করেন।

দুপুরেই স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে স্থানীয় গণমাধ্যম জানাচ্ছিল খালেদা জিয়া কোভিড-১৯ আক্রান্ত বলে শনাক্ত হয়েছেন। এমনকি খালেদা জিয়ার করোনা পরীক্ষার একটি রিপোর্টের কপিও ছড়িয়ে পড়ে অনলাইনে।

তখন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মাঈদুল ইসলাম প্রধান খবরের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেছিলেন, শনিবার খালেদা জিয়ার নমুনা সংগ্রহ করেছে আইসিডিডিআরবি, রবিবার সকালেই মন্ত্রণালয়ের হাতে তার করোনা শনাক্তের প্রতিবেদন পৌঁছেছে।

যদিও দলের সূত্র থেকে এ খবর প্রথমে অস্বীকার করা হয়।

দুটি দুর্নীতির মামলায় কারাদণ্ডে দণ্ডিত খালেদা জিয়া ২৫ মাস জেল খাটার পর গত বছরের ২৫ মার্চ জামিন পান। তিন দফায় তার জামিনের মেয়াদ বৃদ্ধি করা হয়েছে।❐

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *